How to Became a smart lady wear a sharee

How to Became a smart lady wear a sharee

এমন কোন মেয়ে খুজে পাওয়া দায় যে জীবনে একবারের জন্যও শাড়ী পড়েননি।এমনও কথার প্রচলন ছিল শাড়ী না পড়লে নাকি নারীর পূর্ণতা পায়না।বাঙ্গালী নারীর প্রিয় পোশাকের তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করে আছে শাড়ী। সামাজিক অনুষ্ঠান, বাড়িতে, বা যে কোন জমকালো আনুষ্ঠানিক দাওয়াত আড্ডা, অফিসসহ সব জায়গাতেই মানানসই পোশাক এই শাড়ী। অনেক নারী আছেন যারা জীবনের সবচেয়ে বড় প্রশংসাটি কুড়িয়েছেন এই শাড়ী পড়ে। একটু ঘাটাঘাটি বা চোখ মেলে তাকান আপনার চারপাশে কোন পোশাকে নারীকে সবচেয়ে আকর্ষিত করে। এমন রেকর্ড আছে অনেক পুরুষ আছে যে শাড়ী পড়া দেখে তার প্রেমে পড়ে গেছেন।

ফ্যাশানে শাড়ী

যুগে যুগে শাড়ীর রং সুতা ডিজাইনে পরিবর্তনে শাড়ী আজও ফ্যাশানেবল। শাড়ীর কারুকায যতোটা চোখে পড়ে আমার মনে হয় না অন্য কোন পোশাকে এতোটা চোখ আটকে যায়।কতো রংয়ের আর বাহারী ডিজাইন নিয়ে বিভিন্ন নামে আমাদের মাঝে হাজির হয়েছে শাড়ী। যেমনঃ জামদানি, ঢাকাই বেনারসি, কাতান, রেশমী শাড়ী, পাবনার শাড়ী, তাঁতের শাড়ী বিভিন্ন সুপরিচিত শাড়ীগুলোর নাম জানতে এই লিঙ্ককে ক্লিক করে দেখে নিন।বিভিন্ন সুতি শাড়ীর মধ্যে আছে-কোটা, চেক, জামদানি, তাঁত শাড়ী। শাড়ীতে বিভিন্ন ডিজাইনে মন কেড়ে নিতে আাঁচল এবং পাড়ের ধরনেও ভিন্নতা থাকে। আবার সুতি শাড়ীতে ব্লকপ্রিন্ট, বাটিক, স্ক্রিনপ্রিন্ট, ভেজিটেবল ডাই, এমব্রয়ডারি করে আনা হয় রকমারি বৈচিত্র্য। শাড়ী কেবল ঐতিহ্যবাহীই নয়, স্টাইলিশও বটেব।

 

আরাম আর স্বাচ্ছন্দ্যের প্রতীক শাড়ী

যুগে যুগে যত ধরণের পোশাক তৈরি হয়েছে। আমার মনে হয় না শাড়ীর মতো এত আরাম এবং স্বাচ্ছন্দ এনে দিতে পেরেছে। তবে এটা সত্যি কিছু কিছু মেয়েদের কাছে শাড়ী পরাটা অনেকটা বিরক্তিকর বা ঝামেলাযুক্ত। কিন্তু কি করা বলেন শাড়ীরতো এতে কোন দোষ নেই নাচতে না জানলে উঠান বাঁকা হবেই। তবুও শাড়ী  শাড়ীই নারীর প্রথম পছন্দ।

শাড়ী বৈচিত্র্যময়ী

সময়ের বিবর্তনের হাত ধরে শাড়ীর আচঁল এবং পাড়ে নানা বৈচিত্র্যে আবর্তন করে আসছে শাড়ীর কলাকৌশলিরা। এছাড়াও শাড়ীর কুচিতেও থাকছে আলাদা আলাদা ডিজাইন যা কিনা সাদরে গ্রহন করে আসছেন বাঙ্গালী নারীরা। এসব শাড়ীতে থাকছে মনকাড়া নকশা। বিভিন্ন ফ্যাশান ডিজাইনাররা বর্তমানে শাড়ীতে এনেছেন কাথাঁ স্টিচ, ফুলেল ও জামদানি প্রিন্ট, কুচি প্রিন্ট, অ্যাপ্লিক, গুজরাটি কাজের মতো বৈচিত্র্যময় নকশা। এছাড়াও কোটা, নেট সুতি ও ফাইন সুতির কিছু ডিজাইন এনেছেন শাড়ীতে বর্তমান ডিজাইনাররা যা সুতির মতই দেখাবে এবং আরামদায়ক।

 

শাড়ী কৌশলী পোশাক

শাড়ী পড়লে যতটা আরামদায়ক পড়াটা অতোটা সহজ নয়। যে কারণে অনেকের কাছে শাড়ী একটি ঝামেলাপূর্ণ। তাই অনেকে শাড়ী এড়িয়ে যেতে চান। কিন্তু ভাবেনতো যে আপনাকে বাহবা এনে দেবে একটু ঝামেলাতো পোহাতেই হবে। তবে যে কোন কাজ একবার কষ্ট করে শিখে নিলে তা যতো কঠিনই হোক তা আর কঠিন থাকে না। যেহেতু অনায়েই পাওয়া যায় না তাই বলা যায় শাড়ী পড়ে স্মার্ট হতে হলে একটু কৌশলী আপনাকে হতেই হবে।

শাড়ী আপনাকে করবে অনন্যা

যদি একটু কষ্ট করে কৌশল অবলম্বন করে শাড়ীকে ফ্যাশান করতে পারেন তাহলে আপননিই হবে অনন্যা। বর্তমান সময়ের সেরা কিছু কৌশল জেনে নিন যা আপনাকে অনন্য করে দিতে পারে।

১। সরু আচঁল-বোট নেকের ব্লাউজের হেমলাইনে হালকা উচুনিচু কাটের ছোঁয়া দিয়ে আচঁল সরু করে ভাজঁ করুন কোমরের একটু নিচ থেকে আচঁল উপরে রাখুন।

২। কোমরে বেল্ট দিয়ে কুচিঁর সঙ্গে এক প্যাঁচে আচঁল রাখুন দেখুন শাড়ী পরার স্টাইলে ভিন্নতা এসে গেছে।

৩। পেটের কাছে একটুখানি জায়গা কাটা রেখে ব্লাউজ তৈরি করে পরুন আর এই কাটা জায়গাটুকু দিয়েই আচঁলটা বের করে আনুন তারপর দেখুন।

৪। আচঁল সরু করে রেখে লম্বা কামিজ বা ব্লাউজ জ্যাকেটের মতো করে বানিয়ে পরিধান করুন। চুল ছেড়ে দিয়ে রাখতে পারেন বেধেঁ রাখতেও পারেন।তবে মনে রাখবেন জ্যাকেট ব্লাউজে সাধারনত গলার কাছটা বন্ধ থাকে।এক্ষেত্রে গলায় গয়না পড়ার দরকার নেই শুধু কানে নজর দিলেই হবে।

৫। যদি ভেবে থাকেন বিয়ের অনুষ্ঠান, ফ্যাশন শোতে যাবেন তাহলে ভেলভেটের কালো ব্লাউজের সাথে আঁচল সামনে এনে শাড়ী পরুন। পুরোনে সাজের সাথে নতুনত্ব যোগ হবে কোমরের বেল্ট।

৬। হাতায় কোল্ড শোল্ডার, ফ্রিল, রাফল বা কুচিঁ দিয়ে লম্বা হাতা দিয়ে বোতাম না দিয়ে জিপার ব্যবহার করে ব্লাউজ তৈরী করে পরুন । লম্বা কোমর পর্যন্ত বা কোমরের নিচ পর্যন্ত দিতে পারেন। সাথে রাখুন বোট নেক, হাই নেক, কলার বা রাফল।

 

সর্বোপরি শাড়ী যুগ যুগ ধরে চলে আসছে ভবিষ্যেতেও চলবে। আসবে আরো নতুন নতুন ডিজাইনে। এটা অস্বীকার করার জো নেই পড়লে শাড়ী মানায় ভারী হয় পূর্ণ নারী। বাঙ্গালী নারী শাড়ীকে আরো যুগোপযোগী করে শাড়ীকে অধিক আকর্ষিত করেবে এটা বিশ্বাস করি। আজ এ পর্যন্ত যদি পোষ্টটা ভালো লাগে অবশ্যই কমেন্ট করবেন। বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন। যদি আপনার কাছে মনে হয় আরো কিছু যোগ করলে ভালো হতো অবশ্যই জানাবেন। ভবিষ্যতে আরো নতুন নতুন টিপস নিয়ে হাজির হবো। নিয়মিত আমাদের সাইট ভিজিট করে আমাদের সাথে থাকুন। বাহারী রঙ্গের ডিজাইনের শাড়ীর কালেশান পেতে স্বপ্নবাড়ীর শপ পেজ ভিজিট করুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

11 thoughts on “How to Became a smart lady wear a sharee

  1. If yoս find yourself interested by a brand new career as a
    paralegaⅼ, there are a selection of oρtiօns which
    youll Ьe able tto consiɗer. You might deteгmine that being ɑ contract paralegal
    is the way that yօu jᥙst ԝant tto pursue this
    field. You may starrt by weigһing the professionals and cons of thіs eхciting new means of
    working within the paralegal subject; and you could determine
    that it is the most sᥙitable choicee fοr you.

  2. Hey! This is my first visit to your blog!

    We are a collection of volunteers and starting a new initiative
    in a community in the same niche. Your blog provided us beneficial information to work on. You have done a extraordinary
    job!

  3. Hi there! Do you know if they make any plugins to help with SEO?

    I’m trying to get my blog to rank for some targeted keywords but I’m not seeing very good results.
    If you know of any please share. Kudos!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *